Trending

Tuesday, 30 April 2019

ডাকছে যখন গোপালপুর

ডাকছে যখন গোপালপুর:


পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ববর্তী রাজ্য ওড়িশা যা অতি জনপ্রিয় নাম ভ্রমণপিপাসু দের কাছে। পুরী যায় নি এমন বাঙালী পাওয়া অতি দুষ্কর কিন্তু পুরী ছারাও ওড়িশায় আছে আরো ভ্রমণ ডেস্টিনেশন যেসব জায়গায় জমে উঠতে পারে আপনার "উইকেন্ড ট্রিপ"।


পুরীর খুব কাছেই রয়েছে আরেক সুন্দর শহর গোপালপুর, বঙ্গোপসাগর এর গা ঘেঁষা এই শহরে আপনি কাটিয়ে আস্তে পারেন ২-৩ দিন। হাওড়া থেকে ট্রেনে চেপে আপনাকে আসতে হবে গঞ্জাম জেলার ব্রহ্মপুর স্টেশনে সেখান থেকে অটো করে ১৬ কিমি পথ পাড়ি দিলেই সৈকতশহর গোপালপুর। গোপালপুরে আছে অজস্র ছোটো বড়ো হটেল ও লজ।

গোপালপুরের আশেপাশে আছে অজস্র মন্দির ও টুরিস্ট স্পট। এখানকার সবথেকে দর্শনীয় স্থানটি হলো বারকুল যেখান থেকে আপনি পেয়ে যাবে কালীজয় মন্দির যাওয়ার স্পীড বোট ও ছোট বোট। বিস্তীর্ণ সমুদ্রের উপর দিয়ে ৪৫ মিনিটের যাত্রাপথ পথে দেখতে পাবেন অজস্র দ্বীপ ও সুন্দর নৈসর্গিক দৃশ্য। কালীজয় মন্দির ছাড়াও নারায়ণী মন্দির ও ভৈরবী মন্দির বিখ্যাত। এছাড়াও আছে পাহাড়ের উপর অবস্থিত তারাতারিনী মন্দির যেখানে উঠতে হলে টপকাতে হবে ৯৯৯ ধাপ সিঁড়ি আছে রোপ ওয়ের ব্যবস্থা যার খরচ মাথাপিছু ৫০ টাকা। এছাড়াও আছে চিলকা হ্রদের এক অংশ নাম রম্ভা কোমল জলরাশি ও পান্থনিবাস এর জন্য এই জায়গা বিখ্যাত এছারাও আছে ডলফিন পয়েন্ট যেখানে আপনি দেখতে পাবেন ডলফিনের জলক্রীড়া। আছে তাম্পাড়া বাঁধ যেখানে নির্জনে আপনার সঙ্গী হবে সুন্দর সুমিষ্ট বাতাস।


গোপালপুরের সী বিচ অত্যন্ত বিখ্যাত তার নির্জন সৈকতরেখার জন্য তবে এখানে স্নান করে যাবে না চোরাবালি থাকার কারণে। এখানকার মাছভাজা অত্যন্ত বিখ্যাত। ট্রাফিক জ্যামের ভিড়ে ঠাসা শহর কে দূরে রেখে নির্জনে ২-৩ কাটিয়ে আসতেই পারেন। হাওয়া পরিবর্তন করার জন্য এই গোপালপুর এক কথায় অনবদ্য। সুতরাং আর দেরি  না ঘুড়ে আসুন গোপালপুর।

No comments:

Post a comment