Trending

Wednesday, 15 May 2019

চলো যাই লাল কাকড়ার দেশে




সপ্তাহ শেষে ছুটি পেলে আমরা ছুটে চলে যাই দিঘাতে। কারণ হাতের কাছে এমন সুন্দর সমুদ্র সৈকত আর মধ্যবিত্তের বাজেটের মধ্যে অবশ্যই, তাই দীঘা মধ্যবিত্ত বাঙালির ছুটি কাটানো র প্রধান স্থান। কিন্তু আজ আমরা এমন একটি স্থানের সম্পর্কে জানব যেটি দীঘা থেকে অনেক টাকা আছে এবং সুলভে যাতায়াত করা যায়। আমাদের আজকের গন্তব্য "বগুড়ান জলপাই"।



কলকাতা থেকে মাত্র ১৮০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত সমুদ্র সৈকতটি আসলে মৎস্যজীবীদের গ্রাম। নিশ্চিন্ত নিরালায় নিরুপদ্রব ভাবে যদি কেউ সমুদ্র সৈকতে ছুটি কাটাতে চান তাহলে তাদের কাছে আদর্শ স্থান এই বগুড়ান জলপাই। এখানে এখনো দিঘার মতো এতো ভিড় নেই, পরিবেশটাও খুব পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন। কোলাহল হৈ হট্টগোল একেবারেই নেই। শুধু আছে দিগন্ত বিস্তৃত সমুদ্র উপকূল।



আর সে উপকূলে নিশ্চিন্তে ঘুরে বেড়াচ্ছে লাল কাকড়ার দল। এখানে এলে লাল কাকড়ার সঙ্গে লুকোচুরি আপনি খেলতেই পারেন। মানুষের পায়ের শব্দ পেতেই ওরা দৌড়ে গর্তে গিয়ে ঢোকে, কিছুক্ষণ পর আবার উঁকি মারে।



ধর্মতলা থেকে দীঘা গামী বাসে কাঁথি এসে সেখান থেকে যেতে হবে আলাদারপুর, সেখান থেকে ৫-৬ কিলোমিটার দক্ষিনে গেলেই পৌঁছে যাওয়া যাবে বগুড়ান জলপাই। কলকাতা থেকে প্রাইভেট কারে ও যাওয়া যেতে পারে। সময় লাগবে বড়জোর ঘন্টা চারেক।



থাকার জন্য বেশ কয়েকটি হোটেল এবং গেস্ট হাউস রয়েছে যাদের মনোরম পরিবেশ আপনাকে স্বাগত জানাবে।



বগুড়ান জলপাই মন্দারমনি থেকে কিছুটা আগে পরে। নিশ্চিন্তে ছুটি কাটাতে একবার ঘুরেই আসুন ঘরের কাছের এই সমুদ্র সৈকত এ।


No comments:

Post a comment