Trending

Tuesday, 25 June 2019

কাটমানি প্রসঙ্গে নতুন চাপ সৃষ্টি করল বিজেপি



কয়েকদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলীয় কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন, যারা কাটমানি খেয়েছে তারা যেন অবিলম্বে টাকা ফেরত দিয়ে দেয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই নির্দেশিকা কে মোক্ষম অস্ত্র করল বিজেপি। রাজ্যবাসীকে কাটমানির টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য তারা কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে ।প্রয়োজনে তারা বিনামূল্যে আইনি সাহায্য দেবে বলেও জানিয়েছে। বিজেপি যুব মোর্চার কর্মীরা এই কাজে সদলবলে নেমেছে। 

বিজেপি নেতৃত্ব স্থির করেছে যে মঙ্গলবার থেকে কোন জনপ্রতিনিধি যদি তৃণমূলের কোন নেতার কাছে কাটমানির টাকা ফেরত চাইতে আসে তাহলে তারা সেই জনপ্রতিনিধি  বা জনগণের পাশে দাঁড়াবেন। এবং ভিডিও ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও করে রাখবেন। তাদের কথোপকথন রেকর্ড করে রাখবেন। যদি জনসাধারণ চায় তাহলে তারা আইনি সাহায্য  ও দিতে প্রস্তুত বিনামূল্যে।

বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি দেবজিৎ সরকার বলেন বিজেপি সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চেয়েছে এবারেও থাকবে। কাঠ মানি প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস তথা প্রশাসনিক ব্যবস্থা একদিকে বিধ্বস্ত তার উপর বিজেপির এই নয়া উদ্যোগ আরো নতুন করে চাপ সৃষ্টি করলো সে কথা বলাই বাহুল্য। বিশেষ করে তাদের কথোপকথন রেকর্ড করে রাখার আইডিয়ার মাধ্যমে বিজেপির নতুন কায়দায় তৃণমূলকে বিপাকে ফেলতে চাইছে সে কথা স্পষ্ট।

গত 18 ই জুন নজরুল মঞ্চে পুরো প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠকের সময় তৃণমূল নেত্রী জানান কাউন্সিলের জন্য তার অনেক বদনাম হয়েছে। তাই তিনি কড়া নির্দেশ দেন যে যে কাউন্সিলর কাটমানি নিয়েছেন তারা যেন অবিলম্বে তা ফেরত দেন ।মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পাওয়ার পর থেকে অনেক জায়গায় কাটমানি ফেরত চেয়ে অশান্তি হয়। বেশ কয়েকটি জায়গায় তো ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। তার পরে বিজেপি এই নয়া উদ্যোগ নেয়।

দেবজিৎ সরকার আরও বলেন এবার কিন্তু তারা মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পালন করতেই মাঠে নেমেছেন। তাই এবার আর কেউ বলতে পারবে না যে তারা সরকারবিরোধী কাজ করছেন। কারণ যদি কেউ তাদের কাজে বাধা দেয় তাহলে সেটা সরকারকে তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশকে বাধা দেওয়া হবে। তাই তারা আশা করছেন তারা বিনা বাধায় কাজ করতে পারবেন।

No comments:

Post a comment