Trending

Thursday, 13 June 2019

বিজেপির লালবাজার অভিযানে ধুন্ধুমার



সন্দেশখালি ঘটনা এবং রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা অবনতি প্রতিবাদে মঙ্গলবার বেলা বারোটা থেকে বিজেপির লালবাজার অভিযান হওয়ার কথা ছিল। অভিযান আটকানোর জন্য শক্ত হাতে কড়া পদক্ষেপ নিল রাজ্য সরকার। মোতায়েন করা হয়েছিল  প্রায় সাড়ে তিন হাজার পুলিশ। লালবাজারে সামনে তৈরি হয়েছে  চারটে নিরাপত্তা বেষ্টনী।
সুবোধ মল্লিক স্কয়ারে  বিজেপি রাজ্য নেতৃত্বে যাবার কথা ছিল। তবে বিজেপি নেতা মন্ত্রীদের মধ্যে যতজনের উপস্থিত হওয়ার কথা ছিল সকলকে উপস্থিত হতে দেখা যায়নি। বেলা 12 টায় মিছিল শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শুরু হতে বেশ কিছুটা দেরি হয়। সুবোধ মল্লিক স্কয়ার থেকে বিবি গাঙ্গুলি স্ট্রিট হয়ে লালবাজারে পৌঁছানোর কথা এই মিছিল টির।
লালবাজার অভিযান রক্ষার জন্য করা হাতে প্রশাসনকে তৈরি থাকতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মতন পিয়াস লেনে তৈরি করা হয়েছে স্টিলের ব্যারিকেড। পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে মিছিলে অংশগ্রহণকারী হাজার হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থক লালবাজারের দিকে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তা রক্ষার চেষ্টা করে। বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। আন্দোলনকারীদের প্রতিহত করতে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। সেই সঙ্গে জলকামান ছোড়ে পুলিশ। রণক্ষেত্র চেহারা ধারণ করে সেন্ট্রাল এভিনিউ।উল্টোদিকে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ইট পাটকেল ছুঁড়তে থাকে।এই লালবাজার অভিযানকে ঘিরে অগ্নিগর্ভ চেহারা ধারণ করে।

No comments:

Post a comment