Trending

Wednesday, 26 June 2019

মহামারী প্রতিরোধে ব্যর্থ প্রশাসন



বিহার জুড়ে এন্সেফেলাইটিস ক্রমশই মহামারীর আকার ধারণ করছে। এই রাজ্যের 12 টি জেলার 222 টি ব্লকে মারণ রোগের মত ছড়িয়ে পড়ছে ভয়াবহ এনসেফ্যালাইটিস। প্রশাসনিক সাহায্য দূরে থাক, মহামারী বিষয় নিয়ে মুখ খোলায় গ্রামের 39 জন গ্রামবাসীকে গ্রেফতার করল পুলিশ।

বিহারের মোজাফফরপুর,শেহার, বৈশালী এবং পূর্ব চম্পারনে এই রোগ মহামারী আকার ধারণ করেছে। এদিকে পুলিশ বৈশালী জেলা থেকে অনেক মানুষকে আটক করে শুধুমাত্র এনসেফ্যালাইটিস নিয়ে মুখ খোলার কারণে। এদের মধ্যে আবার বৈশালী জেলার হরিবংশ পুর গ্রামের 39 জনের নামে এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পানীয় জলের ঘাটতি এবং ক্রমাগত শিশুমৃত্যু প্রতিবাদ করেছিলেন তারা।

20 শে জুন পর্যন্ত শুধুমাত্র মুজাফফরপুর এই 117 জন শিশু মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। ছিল এই মারণ রোগে। এ ঘটনায় গ্রামবাসী যথেষ্ট আতঙ্কিত ।অনেকেই তাদের শিশুকে অন্য জায়গায় রেখে আসছেন। পাটনার IGIMS প্রাক্তন ডীন এবং ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ রিসার্চ সেন্টারের প্রাক্তন বিজ্ঞানী প্রভাত কুমার সিংহের মতে এই রোগটি শিশুদের ক্ষেত্রে স্নায়ুতন্ত্রের উপর গভীর প্রভাব ফেলে। এর প্রধান লক্ষণ হলো মারাত্মক জ্বর। শুধুমাত্র স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি নয় এই রোগটির জন্য মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে যেতে পারে। তারপরেই রোগী কোমায় চলে যান এবং অবশেষে মৃত্যু হয় তার।

শোনা যাচ্ছে লিচু থেকে এই রোগ ছড়িয়েছে। লিচু গবেষণা কেন্দ্র থেকে জানা গেছে লিচুর মাধ্যমেই এই রোগ বিহারের শিশুদের মধ্যে ছড়িয়েছে। এফআইআর দায়ের হওয়া পরিবারের লোক জনেরা বলেন আমরা আমাদের সন্তান হারিয়েছি। তাই আমরা পথ অবরোধ করেছিলাম কিন্তু পুলিশ আমাদের নামে এফআইআর করেছে।

No comments:

Post a comment