Trending

Friday, 14 June 2019

মুর্শিদাবাদের বিস্ময় কাটরা মসজিদ




কাটরা মসজিদ মুর্শিদাবাদ এর বিশেষ স্থাপত্যশৈলী গুলির মধ্যে অন্যতম প্রধান একটি স্থাপত্য। এটি মুর্শিদাবাদ স্টেশন থেকে ১৬০০ মিটার পূর্বদিকে বাজারের মধ্যে অবস্থিত। এটি দাঁড়িয়ে আছে ৫০.৬০ মিটার আয়তনের একটি বর্গাকার ক্ষেত্রের মধ্যে। মসজিদটি পাঁচ গম্বুজ বিশিষ্ট। এর  চারকোণে চারটি বুরুজ আছে যেগুলি সরু হয়ে উপরের দিকে উঠে গেছে। একটি প্যাচানো সিড়ি পথ বুরুজ এর উপর দিয়ে চলে গেছে। তবে এখন কেবল উত্তর-পশ্চিম এবং দক্ষিণ-পশ্চিম দিকের বুরুজটাই দেখা যায়।



মসজিদটি চারিদিকে দ্বিতল কক্ষের সাড়ি দিয়ে পরিবেষ্টিত। স্থানীয় ভাষায় কাটরা বলে অভিহিত করা হতো একে। এগুলি মাদ্রাসা হিসেবে ব্যবহার করা হতো। এটি ঢাকার কর তলব খান মসজিদের অনুকরণে নির্মাণ করা হয়েছে।
এর পূর্ব দিকে সামনে রয়েছে বহু ভাঁজযুক্ত পাঁচটি খিলান। ভেতরের হলঘর থেকে চারটি খিলান আড়াআড়িভাবে উঠে কেন্দ্রীয় প্রবেশ পথের দু'পাশে সংলগ্ন অবস্থায় রয়েছে।



মসজিদটি নির্মাণ করেছিলেন মুর্শিদকুলি খান।এই মসজিদের ভিতরে বহু খিলানযুক্ত একটি প্রাঙ্গণে, প্রবেশ পথের ঠিক নিচে একটি সমাধিতে তাকে সমাহিত করা হয়েছিল।মসজিদটির গায়ে ফারসি শিলালিপি দেখা যায়। সেখানে ১১৩৭ সালের উল্লেখ আছে। ১৭১৭ সালে মুর্শিদকুলি খাঁ ঢাকা থেকে তার রাজধানী এখানে স্থানান্তরিত করেন। তার নাম অনুযায়ী জায়গাটির নাম হয় মুর্শিদাবাদ। নতুন রাজধানীর জামা মসজিদ হিসেবে এই মসজিদটি নির্মাণ করা হয়।বর্তমানে এই মসজিদটি রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে আছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার এবং আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া।



No comments:

Post a comment