Trending

Thursday, 6 June 2019

শিল্প স্থাপত্যের অপূর্ব নিদর্শন সামুড প্রাসাদ



ভারতের আম্বার ও জয়পুর অঞ্চল এর অধীনে এটি একটি অদ্ভুত স্থাপত্য নিদর্শন, যা প্রায় 300 বছর ধরে বিভিন্ন ঐতিহাসিক কাহিনী সম্বলিত হয়ে বর্তমানে বিরাজ করছে।
মূলত সামুদ রাজস্থানের একটি প্রসিদ্ধ শহর যেখানে বিভিন্ন সময় হিন্দু জমিদাররা রাজত্ব করেছে ।মুঘল সাম্রাজ্যের সময়ে এখানে রাজবির সিংজীর পুত্র গোপাল সিংজী  রাজত্ব করতেন ,এবং ব্রিটিশ শাসনকালে মহা রাওয়াল রাজবংশ কে শাসনের কর্তৃত্ব দেওয়া হয়েছিল। এরপর 1757 সাল থেকে এখনো পর্যন্ত মহারাওয়াল রাজবংশের উত্তরাধিকারীরা বিভিন্ন ঐতিহাসিক নিদর্শন ও স্থাপত্য বহন করে আসছে।


সামুড প্রাসাদটি প্রথম দিকে নির্মাণ করা হচ্ছিল রাজপুত দুর্গ হিসেবে। তারপর উনিশ শতকে বরিশাল নামক এক ব্যক্তির সহায়তায় মুঘল ও রাজপুত স্থাপত্যরীতি সংমিশ্রণে এই সুন্দর প্রাসাদ কে নির্মাণ করা হয়। প্রাসাদটির অসম্ভব সুন্দর কারুকার্যখচিত দেওয়াল, অয়েল পেইন্টিং, মার্বেলের মেঝে, দামি কার্পেট নজর কাড়ে ।প্রাসাদের ভেতর টি সম্পূর্ণ রাজস্থানী সজ্জায় সজ্জিত। প্রাসাদের দক্ষিনে রয়েছে একটি শীষ মহল।


প্রাসাদের সংলগ্ন সামুড বাগ  রয়েছে ।এই বাগানটি ষোল শতকের মুঘল স্থাপত্য রীতিতে বানানো। 20 একর জায়গা বিশিষ্ট এই বাগানটি চারিদিকে উচু পাচিল দিয়ে ঘেরা। বর্তমানে দর্শনার্থীদের সুবিধার জন্য এখানে 44 টি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত তাবু রয়েছে। যেগুলি ল্যাম্পশেড, বিছানা, কার্পেট ইত্যাদি এ দিয়ে সাজানো। এছাড়া দেড়শ বছরের পুরনো একটি প্যাভিলিয়ন আছে এখানে।



রাজপুত মোঘল রীতির অনেক কিছুই এখানে দৃশ্যমান। প্রত্যেক দিন প্রচুর পর্যটক আসেন এই সুদৃশ্য প্রাসাদটি এবং বাগানটি ঘুরে দেখার জন্য। এটি রাজস্থানের একটি অন্যতম প্রধান দর্শনীয় স্থান। 


No comments:

Post a comment