Trending

Sunday, 2 June 2019

অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি বাধ্যতামূলক!!


মোদী 2.0 সরকার এসেই এক বড়ো চমক দিলেন তারা। আসলে কেন্দ্রীয় সরকারের মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন রমেশ পোখরিয়াল নিশঙ্ক তারপরই এই শুক্রবার সারা ভারতে পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি ভাষা বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব জানান। একেই ছাত্র-ছাত্রীদের পড়ার চাপের শেষ নেই। তার মধ্যে বাংলা, ইংলিশ, সংস্কৃতর সাথে হিন্দি যোগ হওয়ার কোনো দাবি নেই বলেন পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকেরা। দক্ষিণ ভারত থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের এই প্রস্তাবের বিরোধিতা বেশি হয়। অবশ্য হিন্দিভাষী রাজ্যগুলির এই বিষয়ে কোনো সমস্যার কারণ নেই। কিন্তু অ-হিন্দি ভাষী রাজ্যের স্কুল পড়ুয়াদের ও ওই রাজ্যের শিক্ষকদের পক্ষে এটা অহেতুক চাপের সৃষ্টি করবে।



কেন্দ্রের শিক্ষা নীতির খসড়ায় স্কুলে তিনটি ভাষা শেখানোর কথা বলা হয়েছে। বিরোধীদের দলদের অভিযোগ, শিক্ষায় গৈরিকীকরণ সঙ্ঘ পরিবারের বরাবরের কৌশল ছিল — ‘হিন্দি-হিন্দু-হিন্দুস্তান’। এই নতুন শিক্ষা নীতির মধ্যে তারই প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে। সব রাজ্যগুলি তাদের মাতৃভাষা ছাড়া ইংলিশ ভাষাকেই পাশে রেখেছেন, কারণ উচ্চ শিক্ষায় এবং সারা বিশ্বে একমাত্র ইংরাজি ভাষারই গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। 


পশ্চিমবঙ্গের সরকারি বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সৌগত বসু বলেন, "১৯৬৬ সালে রাধাকৃষ্ণণ কমিশনে ত্রিভাষা সূত্র বলে একটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। যাতে বলা হয়েছিল বাংলা ইংরাজির পাশাপাশি হিন্দি পড়ার কথা। কিন্তু দেখা যায়, এটা শিক্ষা বিজ্ঞানের পরিপন্থী। ছাত্রছাত্রীরা যখন প্রথম শ্রেণিতে পড়াশুনো শুরু করে তখন তাকে মাতৃভাষার পাশাপাশি আরও একটি ভাষায় শিক্ষা দেওয়া যেতে পারে সেটি হল ইংরাজি। কারণ ইংরাজি সর্বস্তরে যোগাযোগের একটি মাধ্যম। ফলে হিন্দিকে কখনই তার পাশাপাশি চাপিয়ে দেওয়া উচিৎ নয়।"

No comments:

Post a comment