Trending

Friday, 28 June 2019

সবুজের অভিযানের নয়া উদ্যোগ বৃক্ষ প্রতিস্থাপন

Image result for tree replacement


এতদিন তো আমরা হার্ট, কিডনি, লিভার প্রতিস্থাপনের কথা শুনে এসেছি, কিন্তু বৃক্ষ প্রতিস্থাপন কি শুনেছেন আগে? এবার সেটাই ঘটলো কলকাতা মেডিকেল কলেজ চত্বরে। কলকাতা পুরসভা এবং বনদপ্তর এর যৌথ উদ্যোগে বৃহস্পতিবার ১০০বছরের পুরনো এই হরিতকী গাছ প্রতিস্থাপন করা হলো। নতুন মেডিকেলের একাডেমিক বিল্ডিং এর পাশে ছিল গাছের ঠিকানা ।সেখান থেকে তাকে প্রতিস্থাপিত করা হয় ইডেন বিল্ডিং এর পাশের বাগানে।

হাসপাতালে সুপার ইন্দ্রনীল বিশ্বাস জানান হাসপাতালে ট্রান্সফর্মার বসানো হবে। সেই কারণে ওই জায়গাটা তাদের প্রয়োজন ছিল। তাই সম্পূর্ণ বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি মেনে ই তারা গাছটিকে প্রতিস্থাপন করেছেন। বন দফতরের কর্মীরা গত পাঁচ দিন ধরে গাছটির পরিচর্যা করে চলেছেন। তারপর বৃহস্পতিবার সকালে ক্রেন দিয়ে গোটা গাছটিকে তুলে ফেলা হয় এবং নতুন স্থানে প্রতিস্থাপিত করা হয়। 



কলকাতা পুরসভার মেয়র দেবাশীষ কুমার জানান মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ প্রায় এক মাস আগে গাছটি কেটে ফেলার আর্জি নিয়ে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল ।তখন পৌরসভা থেকে তাদের গাছটি না কেটে গাছটিকে প্রতিস্থাপনের কথা বলা হয়। এরপরই সমস্ত নিয়মকানুন মেনে যথাযথ উপায় গাছটিকে প্রতিস্থাপন করা হলো।
পরিবেশবিদ সুভাষ দত্ত কলকাতা পুরসভা ও মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। যে হারে মাটিতে জল স্তর কমছে আর বায়ু দূষণের মাত্রা বাড়ছে তাতে আর একটিও গাছ কাটা উচিত নয় বলে তিনি জানিয়েছেন ।আর প্রতিস্থাপনের পর ৮০% গাছ ই  বেঁচে থাকে। তবে প্রতিস্থাপনের প্রক্রিয়াটি যথেষ্ট খরচ সাপেক্ষ, এবং গাছটির পরিচর্যা দরকার । আশার কথা এটাই যে এখন মাঝে মাঝে বৃষ্টি হচ্ছে তাই প্রতিস্থাপিত গাছটি নতুন মাটিতে ধরে যাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। পরিবেশবিদদের বক্তব্য অনুযায়ী যেমন বৃদ্ধ বয়সে অস্ত্রোপচারের আগে অনেক কিছু খেয়াল রাখতে হয় তেমনি বৃদ্ধ গাছ কে প্রতিস্থাপন এর আগেও অনেক কিছু খেয়াল রাখতে হয় ,গাছটি রাসায়নিক গঠন যেন ঠিক থাকে সেদিকে নজর রাখা জরুরি। এই কারণে মাটির সাথে প্রতিস্থাপন করতে হয় এবং প্রতিস্থাপনের পর ১৫ দিন নিয়ম করে জল দিতে হয়। তবেই সে আস্তে আস্তে নতুন মাটিতে বেড়ে উঠতে শুরু করে। 

No comments:

Post a comment