Trending

Saturday, 6 July 2019

বিদ্যুৎ ঘাটতির কারণ হুকিং



লাগাতার হুকিং এর কারণে বিদ্যুৎ ঘাটতি হচ্ছে বারবার। এখনো পুরোপুরি মেটেনি ভাঙ্গড়ের পাওয়ার গ্রিড এর সমস্যা। এদিকে বর্ষাকাল চলে এসেছে। এই সমস্ত একগুচ্ছ সমস্যা মেটাতে দক্ষিণ 24 পরগনার জেলা শাসক পি উলাগানাথান বিদ্যুৎ ঘাটতি মেটাবার লক্ষে কয়েকটি পদক্ষেপ নিলেন। 

শুক্রবারে তিনি আলিপুরের বিদ্যুৎ অধিকারীক, কর্মাধ্যক্ষ, এবং দুজন বিধায়ক কে নিয়ে বৈঠক করেন। এখানেই তিনি জানান লাগাতার হুকিং এর কারণে বিদ্যুৎ ঘাটতি হচ্ছে। সেই হুকিং প্রতিরোধ এবার কড়া হাতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিদ্যুৎ আধিকারিকরা জানান এলাকাতে বিদ্যুতায়নের কাজ বেশ ভালোভাবেই এগোচ্ছে। সাগরদ্বীপ সহ আশেপাশের দ্বীপ অঞ্চল গুলিকে গ্রিডের বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

তবে এখনো পর্যন্ত ঘোড়ামারা ও মৌসুনি দ্বীপ এ বিদ্যুৎ পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। কিন্তু নদী পার করে  সুন্দরবনের বেশ কিছু এলাকায় বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়া গেছে। ভাঙ্গড়ের পাওয়ার গ্রিড এর কাজ নতুন ভাবে শুরু করা হয়েছে। বিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ চলছে বিভিন্ন জায়গায়। আগামী দিনে আরো বেশ কয়েকটা সাব স্টেশন তৈরি করে বিদ্যুৎ প্রকল্প কে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে।

বর্ষাকালে সুন্দরবন সহ বিভিন্ন দ্বীপ এলাকাগুলিতে দীর্ঘসময়ের জন্য লোডশেডিং থাকে। এ দিনের বৈঠকে এ লোডশেডিং থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায় নিয়ে আলোচনা করা হয়। দক্ষিণ 24 পরগনা জেলার বিদ্যুৎ এর আঞ্চলিক অধিকর্তা বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন গ্রাহকদের সেবা প্রদানের জন্য বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে ইতিমধ্যেই। দ্রুত গতিতে সেগুলির কাজ চলছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন এলাকায় লোডশেডিং কমানো সম্ভব হয়েছে ।আগামী দিনে এ কাজটি আরও ভালোভাবে করা যাবে।

জেলা পরিষদের কর্মদক্ষ শৈবাল লাহিড়ীর কথায় তারা প্রতি মাসে বিদ্যুৎ এর রিভিউ মিটিং করেন দপ্তরে কোথাও কোনো খামতি থেকে যাচ্ছে কিনা, সেই বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করার জন্য। এখন অব্দি বিদ্যুতের যে সমস্যাগুলো আছে তা জেলাশাসকের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করে আগামী দিনে মিটিয়ে ফেলা সম্ভব বলে তিনি জানিয়েছেন।

No comments:

Post a comment