Trending

Friday, 12 July 2019

রেল সাফাই কর্মীদের নিয়ে উদাসীন প্রশাসন



রেল সাফাই কর্মীদের নিয়ে প্রশাসনের কোনো মাথাব্যথা নেই ।এমনকি কেন্দ্র চুক্তি ভিত্তিক ভাবে ঠিকাদার এর মাধ্যমে সাফাই কর্মী নিয়োগ করে ।তাও গোপনে ।কোন কারণেই এটি তারা প্রকাশ্যে আনে না। এটি কর্মীদের পক্ষে অত্যন্ত অসহায়ক বলে উল্লেখ করলেন ডিএমকে নেত্রী কানিমোঝি।

2019 এর বাজেট এবং নরেন্দ্র মোদির ডিজিটাল ইন্ডিয়া কে কটাক্ষ করে তিনি লোকসভায় দাবি করেন এখনও পর্যন্ত কেন্দ্র ম্যানুয়াল রেল সাফাই কর্মী নিয়োগের ব্যাপারটিকে লজ্জার বিষয় বলে মনে করে।

এছাড়াও তিনি বলেন গোটা দেশে হিন্দি ভাষা দাপট চলছে।প্রত্যেকটি রেল স্টেশনে শুধুমাত্র হিন্দিভাষায় লেখা থাকে ।যেখানে আঞ্চলিক ভাষাকে প্রাধান্য দেওয়া উচিত। সরকারের উচিত জনসাধারণের জন্য কাজ করা ।যদি জনসাধারণ প্রতিনিয়ত অসুবিধায় পড়তে থাকে তাহলে সেই সরকার কি করে নিজের সাফল্য দাবি করে?

নাম ,প্রতীক এবং ভাষা সব সময় আঞ্চলিক ভাষাতে থাকা উচিত ।যাতে সাধারণ মানুষের বুঝতে কোন অসুবিধা না হয়। যেমন কেন্দ্রের সমস্ত অনুষ্ঠান হিন্দি ভাষায় হয় ,যা তামিলনাড়ুর প্রত্যন্ত গ্রামের সাধারণ মানুষের পক্ষে বোঝা একেবারেই অসম্ভব।

ডিএম কে প্রতিষ্ঠাতা করুণানিধির মৃত্যুর পর তার মেয়ে কানিমোঝি লোকসভা কেন্দ্রে ভোটে দাঁড়ান। তিনি তামিলনাড়ুর বিজেপি সভাপতি তামিশিলা সুন্দরাযান কে পরাস্ত করেন।






No comments:

Post a comment