Trending

Monday, 12 August 2019

খেলা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বাড়ছে শিশুদের বিপদ



ব্যাঙ্গালোর মনিপাল হাসপাতালে হোয়াইটফিল্ড এর 3 জন বিশিষ্ট চিকিৎসক বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানালেন শিশুদের শিরদাঁড়ার সমস্যা হওয়ার কারণ বইয়ের ব্যাগের বাড়তি বোঝা নয়। খেলাধুলা বন্ধ হয়ে যাওয়াই এর মূল কারণ। বিগত কয়েক মাস ধরে একটি গুজব ছড়াচ্ছিল যে বইয়ের ব্যাগের অতিরিক্ত বোঝার কারণে শিশুদের শিরদাঁড়া বেঁকে যাচ্ছে এবং তাদের শিরদাঁড়ায় সমস্যা হচ্ছে ।কিন্তু মেরুদন্ড সংক্রান্ত বিষয়ক সার্জেন্ট ডক্টর  ভারত পি সরকার, অস্থি রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের অরবিন্দ রাজমন্যা, এবং স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ ডক্টর এস এন সন্তোষ জানিয়েছেন যে বইয়ের বোঝার জন্য শিরদাঁড়ায় সমস্যা হওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই।

বর্ধমানে এই তিন চিকিৎসক জটিল এই সমস্যায় ভোগা 3 জন রোগীকে হাজির করেন এদিন।  শ্রীধর সাহেবগঞ্জ এর বাসিন্দা ইসমাইল সেখ 13 বছর বয়সে শিরদাঁড়ার সমস্যায় পড়েন। তার শিরদাঁড়া বেঁকে যায়। অস্ত্রোপচারের পর বর্তমানে তিনি সুস্থ।

হুগলির আটপুরের বাসিন্দা 67 বছরের গৌরী দেবী হাটুতে বাতের ব্যথায় দীর্ঘদিন কষ্ট পাচ্ছিলেন। বর্তমানে অস্ত্রোপচারের পর তিনি  ও সুস্থ।

মুর্শিদাবাদের ঝিল্লি এলাকার বাসিন্দা মেনোকা দেওয়ান ভাইরাল সংক্রান্ত কারণে দিন দিন কুজো হয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি ও  ঔষধের মাধ্যমে সুস্থ।

ডক্টর ভারত সরকার জানান বর্তমানকালে 20 থেকে 45 বছর বয়সী মানুষের মধ্যে 100 জনের মধ্যে কুড়ি জনের এই শিরদাঁড়া সংক্রান্ত সমস্যা রয়েছে। এটা দুশ্চিন্তার বিষয় হলেও বর্তমানে উন্নত চিকিৎসা পদ্ধতির মাধ্যমে এর নিরাময় সম্ভব।

তারা জানিয়েছেন শিরদাঁড়ার সমস্যা দূর করতে হলে প্রতিদিন নিয়ম করে ব্যায়াম করা প্রয়োজন। এছাড়া বর্তমানে শিশুদের মাঠে ছুটোছুটি করে খেলাধুলা করা প্রায় বন্ধই হয়ে গেছে। সে কারণেই তাদের ছোট থেকে শিরদাঁড়া সমস্যা তৈরি হচ্ছে। তাই শিশুদের ছুটোছুটি করে খেলা করলে সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কম।

No comments:

Post a Comment