Trending

Wednesday, 11 September 2019

সংস্কারের অভাবে ধুঁকছে ঐতিহাসিক নল রাজার গড়



 ইতিহাস এবং পর্যটনের অপূর্ব মেলবন্ধন নল রাজার গড়  সংস্কারের অভাবে প্রায় ধ্বংস হতে বসেছে।আলিপুরদুয়ার এর কাছে চিলাপাতা অরণ্যে রয়েছে এই বিখ্যাত নল রাজার গড়, যা
 দেখতে প্রতিবছর ভিড় করেন বহু বিদেশি এবং দেশি পর্যটক। 

 কোচ রাজবংশএর  আদিপুরুষ বিশ্ব সিংহের তৃতীয় পুত্র চিলা রায় নির্মাণ করেছিলেন আলিপুরদুয়ার ডুয়ার্স এর মধ্যবর্তী অঞ্চলে বিখ্যাত এই গড় টি।পরবর্তীকালে রাজা নর নারায়ণ রায়ের নামে এটি পরিচিত হয় নল রাজার গড় নামে,  আর স্থানীয় জঙ্গল টি  পরিচিত হয় চিলাপাতা অরণ্য নামে। আলিপুরদুয়ার থেকে এই অরন্যটির দূরত্ব মাত্র কুড়ি কিলোমিটার। 

 শোনা যায় তখন এই জঙ্গলএ  প্রচুর গন্ডার ছিল। কুচবিহারের রাজারা  গন্ডার সিকার করতে এসে এই দুর্গে আশ্রয় নিতেন,  কিন্তু বর্তমানে সংস্কারের অভাবে একেবারে শেষ হতে বসেছে এই বিখ্যাত দুর্গটি। জানা গেছে 1538 সালে ভয়াবহ ভূমিকম্পে দুর্গটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়,  তারপর থেকে দুর্গের ধ্বংসাবশেষ দেখতেই ভিড় করেন দেশি-বিদেশি পর্যটকরা। 

 জলদাপাড়া আর বক্সা টাইগার রিজার্ভ এর মধ্যবর্তী এই চিলাপাতা অরণ্য হল হাতি চলাচলের পথ। এখানে হাতির পিঠে চড়ে জঙ্গলে ঘুরতে প্রচুর পর্যটক আসে। দিনে দুপুরে এখানে হাতি দেখা যায়,  হরিণ আসে জল খেতে। জঙ্গলের মধ্যে একটি অসাধারণ সুন্দর নজর মিনার ও আছে। সেখানে কিছুক্ষণ সময় কাটিয়ে  পর্যটকরা চলে যান নল রাজার গড়ে।  

 বর্তমানে কয়েকটি ইটের সমষ্টি ছাড়া এখানে আর কিছুই দেখার নেই। অসাধারণ প্রাকৃতিক পরিবেশের জন্য এখানে পর্যটকরা ভিড় করেন,  তাই পর্যটকরা চান যাতে সরকারি সাহায্যে গড় টি র সংস্কার করা যায়,  কারণ নাহলে খুব তাড়াতাড়ি বিলুপ্ত হয়ে যাবে এই বিখ্যাত ঐতিহাসিক নিদর্শন নল রাজার গড়। 

No comments:

Post a comment