Trending

Saturday, 14 September 2019

মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এল প্রাচীন মূর্তি



টমেটো চাষের জন্য মাটি খুঁড়ছিলেন এক কৃষক। জমিতে জল সংরক্ষণ করে রাখার জন্য জমির এক পাশে দুই থেকে তিন ফিট গর্ত করছিলেন তিনি, হঠাৎই পাথরের বস্তুর বাড়ি লাগে।সে জায়গাটি আরও ভালোভাবে খুঁড়তে  বেরিয়ে আসে  কালো নীল রংয়ের মূর্তিগুলি।  একে একে বেরিয়ে আসে লক্ষ্মী গণেশ বজরংবলী সহ আরো বেশ কিছু মূর্তি।


ঘটনাটি ঘটেছে মালদার হাবিবপুর থানার শ্রীরামপুর অঞ্চলে রঞ্জিতপুর গ্রামে।এই অঞ্চলটি আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকা। মূর্তি উদ্ধারের ঘটনার পর থেকেই ব্যাপক শোরগোল পড়ে যায় চারদিকে,  শুরু হয়ে যায় ধূপ ধুনো দিয়ে পূজা-অর্চনা।স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে এসে মূর্তিগুলো তুলতে চেষ্টা করলেন গ্রামবাসীরা প্রবল বাধা দেয়।তাদের বাধার মুখে পড়ে কাজ বন্ধ রেখে চলে যেতে হয় পঞ্চায়েত সদস্যদের। 



জেলাশাসক কৌশিক ভট্টাচার্য্য জানিয়েছেন,  আদিবাসীরা  চাইছে  মূর্তিগুলি গ্রামেই থাকুক, তবে মূর্তিগুলো প্রাচীন।কষ্টিপাথরের মূর্তি গুলো সংরক্ষণ করার জন্য প্রয়োজন হলে গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলা হবে। 



কৃষক রবি মান্ডির  জমি থেকে মূর্তি গুলি উদ্ধার হওয়ার পর থেকেই সেখানে প্রচুর ভিড় জমতে শুরু করেছে।অবশেষে বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেড করে দেওয়া হয়েছে স্থানটি, কৃষক রবি মান্ডি জানায় টমেটো চাষের জন্য সে জল সংরক্ষণ করার চেষ্টা করছিল, সেই জন্যই সে জমির মধ্যে দুটি করে গর্ত  করছিল,  সেটা  করতে গিয়ে আবিষ্কৃত হয় এই প্রাচীন মূর্তি গুলি। 

No comments:

Post a Comment