Trending

Friday, 20 September 2019

বাংলায় এনআরসি নিয়ে কার্যত চুপ থাকলে অমিত শাহ


অমিত শাহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কাল ছিল তার প্রথম বৈঠক।জোরদার জল্পনা-কল্পনা চলছিল।আলোচনার মূল বিষয় ছিল নাগরিকপঞ্জি,  বৈঠক শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান অমিত শাহ শুনেছেন বেশি বলেছেন কম।তিনি আরো জানান বাংলা ভালো থাকলে গোটা দেশ ভালো থাকবে।আসামে নাগরিক পঞ্জি প্রকাশিত হওয়ার পর বিজেপি নেতারা বাংলায়  এনআরসি চাইছে।অমিত শাহ ঝাড়খণ্ডে জানিয়েছেন সরকার চায় গোটা দেশে এনআরসি হোক।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে নেপাল ভুটান এবং বাংলাদেশের সীমান্ত আছে। নিরাপত্তার প্রশ্নে বাংলার অবস্থান খুবই গুরুত্বপূর্ণ।আসামে এনআরসি হওয়ার পর 19 লক্ষ নাগরিক বাদ পড়েছেন। আসামের ঘটনায় বাংলাতেও এনআরসি নিয়ে যথেষ্ট ক্ষোভ এবং অসন্তোষ প্রকাশ পাচ্ছে।

বাংলার  মানুষ স্বাধীনতা সংগ্রামের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিল, তারা যদি এনআরসির কারণে নিজেদের বহিরাগত বলে ভাবতে শুরু করেন তাহলে বাংলার  জাতি  অভিমান নষ্ট হবে,  যা গোটা দেশের পক্ষে মারাত্মক।

 ১ লা  অক্টোবর কলকাতায়  দলীয় কর্মীদের কাছে এনআরসি নিয়ে ব্যাখ্যা দেবে অমিত শাহ।এনআরসি মানুষের সঙ্গে কোনো কথা হয়েছে কিনা এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে মুখ্যমন্ত্রী জানান এনআরসি নিয়ে তার সঙ্গে অমিত শাহের কোন কথা হয়নি,  তবে বাংলা এনআরসি চায়না,  বিহার ও  চায়না। 

No comments:

Post a comment